অ্যান্ড্রয়েডঃ জানার আছে অনেক কিছু, হার্ডটেকিদের জন্য!!!

হার্ডটেকিদের জন্য বললাম- কারণ সমস্যাগুলো সাধারণ ইউজাররা সমাধান করতে পারবেন না। তবে তারা এই টিউন থেকে অনেক কিছু জানতে পারবেন অবশ্যই!
তাই হার্ডটেকি ভাইয়েরা সমাধান দিবেন আর আমাদের মত নতুন অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীর জ্ঞানভান্ডারে নতুন কিছু সংযোজন হবে এটাই প্রত্যাশা। তাই বিনীত অনুরোধ টিউনের শিরোনাম নিয়ে কেউ যেন সমালোচনা না করেন। কথা না বাড়িয়ে শুরু করে দেই। (আমি নতুন অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী, এখানে এমন প্রশ্ন থাকতে পারে যা অন্যের কাছে পানির মতো সহজ, তাই সহযোগিতার মনোভাব কাম্য)
অ্যান্ড্রয়েড জিজ্ঞাসাঃ
১) বুট লুপে আটকে যাওয়া মানে কী?
২) আমার হ্যন্ডসেটটি মাঝে মাঝে স্টার্ট হওয়ার সময় বার স্টার্ট হতে থাকে (ওয়েলকাম স্ক্রীনে Walton এর লোগো আসে তারপর আবার স্টার্ট নেয়) এরকম কেন হয়? (কেনার পরদিনই এ সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলাম। সব সময় করে না। কোন সময় ৩-৪ বারের সময় স্টার্ট নেয়)
৩) অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে নিওন সাপোর্ট আছে কিনা জানার জন্য কোন অ্যাপ্স আছে কি? কিংবা জানার পদ্ধতি কী?
৪) র্যা ম DDR 1/2/3 – এগুলো জানার পদ্ধতি কী আর পিসির ন্যায় এগুলোতেও কি বাস স্পীড আছে নাকি? থাকলে জানার উপায় কী?
৫) ডিভাইসে HTML 5- সাপোর্ট থাকা মানে কী?
৬) রিস্টার্ট হতে প্রায় ৩০+ সেকেণ্ড দেরী হয় কী করা যায়? (উল্লেখ্য, android assistant দিয়ে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ্স বন্ধ রেখেছি তারপরো এই সমস্যা)
৭) LBE Security Lite নামের এই অ্যাপ্সটি ইন্সটল করার পর অটো রিস্টার্ট হতে থাকে, সমস্যা থেকে উত্তরণের উপায় কী? (সমাধান না পেয়ে ফার্মওয়্যার আপগ্রেড করে এই ঝামেলা থেকে মুক্তি পেয়েছিলাম :P)
৮) স্টক রমের ব্যাকআপ নিয়ে বুটলোডার আনলক করে কাস্টম রম ফ্লাস করে সেই রমের কার্ণেল ইন্সটল করা- এই পর্যন্ত তো কাস্টম রম ইন্সটল করার প্রক্রিয়া নাকি আরো ধাপ আছে? অথবা আমার বোঝার মাঝে ভুল আছে?
৯) যদি আমার কাছে ফার্মওয়্যার থাকে আর আমি কোন ধরণের ব্যাকআপ না নিয়ে শুধু কাস্টম রম ইন্সটল দেই তাহলে কি আবার ফার্মওয়্যার ফ্ল্যাশ দিলে পূর্বের স্টক রমে ফিরে যাবো নাকি অন্য কিছু আছে? যেতে কোন ধরণের সমস্যা হবে কি? (বুট লোডার আনলক, কার্ণেলের পরিবর্তন ইত্যাদির কারণে…) নাকি কাস্টম রম ফ্ল্যাশ দেবার জন্যে স্টক রমের ব্যাকআপ নেয়া বাধ্যতা মূলক। ফার্মওয়্যার আপগ্রেড করলে কাজে আসবে না??
১০) ফার্মওয়্যার আর স্টক রমের মাঝে পার্থক্য কী?
১১) Reverse Thethering সম্পর্কে কারো ভালো ধারণা জানা থাকলে জানান (এক্টিভ করার সহজ প্রক্রিয়া, লেটেস্ট অ্যাপ্স ব্যবহার করে ইত্যাদি…)। এই পদ্ধতি অনুসরণ করলে সুবিধা-অসুবিধা কি হবে জানাতে পারেন।
১২) Android Assistance আর Super Task Killer এই দুনো অ্যাপ্স এক সাথে ব্যবহার করা যাবে কি? দুনোটার কার্যক্ষেত্রে কি ভিন্নতা নাকি অভিন্নতা রয়েছে?
13) Titanium Backup ও Rom Manager এর মাঝে পার্থক্য কী?
(উত্তর দেবার সময় অনুগ্রহ করে আগে প্রশ্নের নাম্বার তারপর উত্তর দিবেন। এতে সকলের বুঝতে সুবিধা হবে, ধন্যবাদ।)

বিঃদ্রঃ আমি বর্তমানে আমার জীবনের প্রথম অ্যান্ড্রয়েড ফোন (Walton-Primo F3/ Jellybean-4.2.2/Rooted) ব্যবহার করছি।