একটি গুরত্বপূর্ন প্রশ্নের উত্তর চাচ্ছি কাহারো জানা থাকলে একটু দয়া করে বলবেন

Please check these topics first.

    Administrator Member Since Oct 2016
    Flag(0)
    Nov 03, 2012 03:40 PM 3 Answers
    Subscribe

    মালয়েশিয়া থেকে এক মুসলিম ভাই জানতে চায়, সে বলছে সে একটি আইটি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং কোম্পানীতে ছিল। এই কোম্পানীতে এম এল এম সিষ্টেমটাও ছিল। এই কোম্পানীর নিয়ম ছিল কেহ ১০৫ ডলার দিয়ে ভর্তি হলে তাকে ছয়মাস পর্যস্ত এ্যাড পোষ্টিং এর কাজ দিত, সে কাজ সদস্যগন করে দিলে তারা বেতন দিত। এই কোম্পানীতে ইনভেষ্টিং প্লানও ছিল যেমন কেহ ৫০০ ডলার বিনিয়োগ করলে মাসে টাকার অংকের উপর ১০% লাভ দিত। কোম্পানীটা ১ বছর সার্ভিস দিয়ে বন্ধ হয়ে যায়। সে সেখানে কয়েক জন লোক রেফার করেছিল তাদের মাধ্যমে আবার কিছু লোক সেখানে জয়েন করেছিল এভাবে একটি বড় টিম তার হয়ে গিয়েছিল। বলতে গেলে সেখানে প্রায় সবাই ক্ষতিগ্রস্থ। প্রথম ছয়মাসের ভিতর যারা জয়েন করেছিল তাদের টাকা হয়ত উঠে এসেছে। কোম্পানীতে এম এল এম সিষ্টেম থাকার কারনে সেই ছেলের একটি ইনকামও হয়েছিল। তবে ছেলে বলছে সে যখন কিছু লোককে সেখানে রেফার করেছিল তখন সে তাদের কোন risk নেয়নি অর্থাৎ ছেলে প্রত্যেককেই বলেছে যে কোম্পানী কোন কারনে বন্ধ হয়ে গেলে সে risk নয়, যারা ভর্তি হয়েছিল তারাও নিজের risk এ জয়েন করেছিল। তার টিমে যারা ইনভেষ্ট করে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল কোম্পানী বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর তাদের কেহই সে ছেলেকে আর কিছু বলেনি। আর বলার অবকাশও নেই যেহেতু তারা নিজ দায়িত্বে বুঝে শুনে জয়েন করেছিল।

    এখানে ৪টি প্রশ্ন

    ১। সেই ছেলের সেখান থেকে যে ইনকামটা এম এল এম সিষ্টেম থেকে হয়েছিল সেটা হালাল কিনা ?

    ২। যারা ইনভেষ্ট করেছিল তাদের কেহ যদি এই বলে দাবী রেখে দেয় যে, তার ইনফরমেশনে যেহেতু সেখানে টাকা ইনভেষ্ট করেছিলাম সুতরাং দাবী থাকল। এই দাবী রাখা কি ইসলামের দৃষ্টিকোন থেকে গ্রহনযোগ্য হবে ?

    ৩। সেই ছেলে এখন অনুতপ্ত। সে বলছে সে আর কখনো এম এম এম ব্যবসায় জড়াবে না এবং সে নাকি আল্লাহর নিকট এই বিষয়ে অঙ্গিকার করেছে। তার যে ইনকামটা হয়েছিল সে এখন সেই টাকা দিয়ে সেখানে একটি ইসলামী লাইব্রেরী খুলেছে, সেখানে ইসলামী বই বিক্রি হয়। তবে অন্যান্য বইও সেখানে বিক্রি হয়। তার প্রশ্ন সে যে এখন হালাল ব্যবসা করছে এম এল এম এর মাধ্যমে উপার্জিত টাকা দিয়ে, তার এখন যে উপার্জনটা হচ্ছে সেটা কি হালাল।

    ৪। যদি এমন উত্তর আসে যে সবার কাছে ক্ষমা চাইতে হবে তাহলে আমার প্রশ্ন ধরুন মিঃ এ, মিঃ বি কে, জয়েন করাল, মিঃ বি, মিঃ সি, কে জয়েন করাল এখন সির দায়ভার কি প্রথম এ ব্যক্তির কাধে আসবে ? এখানে আসলে বুঝাতে চাচ্ছি প্রথম ব্যক্তি হয়ত দুইজন জয়েন করিয়েছিল এ এবং বি, এখন তাদের মাধ্যমে হয়ত চারজন জয়েন করেছে এভাবে হয়ত দশ হাজার লোক জয়েন হয়েছে। এখন প্রথম ব্যক্তিত আর দশ হাজার লোক চিনেনা, এখন সে কি প্রথম দুই ব্যক্তির কাছে এই বলে ক্ষমা চেয়ে নিবে যে তারাও যেন তাদের চারজনের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেয় এবং সে চারজন যেন তাদের স্পন্সরদের নিকট ক্ষমা চেয়ে নেয়।

    এই বিষয়ে চিন্তাশীল লোকদের নিকট উত্তর চাই, আমাদের দেশের লক্ষ লক্ষ লোক যেহেতু এই ব্যবসার সঙ্গে জড়িত হয়ে বিভিন্ন সময় এই সমস্ত সমস্যার সম্মুখিন হয়েছে সুতরাং আমি মনে করি এই ৪টি প্রশ্নের উত্তর দ্ধারা বহু মানুষ উপকৃত হবে এবং সতর্ক হবে। দয়া করে একটু গভির ভাবে চিন্তা করে তারপর উত্তরটি দিবেন। অথবা আপনার পরিচিত কোন বিচক্ষন ইসলামী চিন্তাবিদ যদি থাকে তার কাছে বিষয়টি উপস্থাপন করে হলেও উত্তরটি দিবেন। তবে কুরআন হাদিসে যেহেতু এই সমস্ত ব্যবসার কথা নেই এবং কোন ফেকাহের কিতাবেও যেহেতু এই ব্যবসার কথা নেই সেই ক্ষেত্রে হয়ত ধর্মিয় ব্যক্তিগন একটু আইডিয়া করেই উত্তরটা দিবে তবুও তাদের উত্তরকে অবমুল্যায়ন করা যায় না। যে সমস্ত ইসলামী চিন্তাবিদদের কুরআন হাদিসের পাশাপাশি ইসলামী অর্থনীতি, শেয়ার, পূজিবাদ, এমএলএম, সুদি ব্যংকিং ব্যবস্থাপনা, ফরেঙ্ ইত্যাদি বিষয়ের উপর ভাল ধারনা রয়েছে তারা হয়ত এই সমস্ত প্রশ্নের সুন্দর উত্তর দিতে পারবে। এছাড়া যারা কুরআন হাদিস ব্যক্তিগত ভাবে গবেষনা করেছে এবং সমকালীন বিশ্বের উপর ভাল ধারনা রয়েছে তার পক্ষেও এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দেওয়া একেবারেই অসম্ভব এমনটি মনে করার কোন কারন দেখিনা সুতরাং এই সমস্ত ভাইদের উত্তরকেও মুল্যায়ন করা হবে।

    1 Subscribers
    Submit Answer
    Please login to submit answer.

    3 Answers
    Sort By:
    Best Answer
    0
    AnswersBD Administrator Apr 12, 2013 02:14 PM
    Flag(0)

    উত্তর:

    ১. এম.এল.এম পদ্ধতিতে ইনকাম হারাম।

    ২. যেহেতু তারা নিজ দায়িত্বে যোগদান করেছে সুতরাং কোন দাবী থাকবে না।

    ৩. অবৈধ অর্থ দিয়ে বৈধ ব্যাবসাও হারাম। তবে যেহেতু জীবিকা নির্বাহ করছেন তাই সময় নিয়ে টাকাগুলো ফেরৎ অথবা দান করুন।

    ৪. প্রথম লেভেল এর লোকদের কাছে ক্ষমা চাইলে ইনশাআল্লাহ আল্লাহ আপনাকে ক্ষমা করে দেবেন।

    Sign in to Reply
    Replying as Submit
    Best Answer
    0
    AnswersBD Administrator Feb 26, 2013 10:29 PM
    Flag(0)

    আপনার ভাগ্য ভালো যে আপনি ঢাকায় অবস্থান করছেন। আপনি এই  টপিকটি দেখতে পারেন। খুব ভালো হয় যদি আপনি এদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন, যেহেতু আপনি ঢাকায় আছেন। জাযাকাল্লাহ্‌, দীর্ঘ লাইন লিখেছেন বহু শ্রম ব্যয় করে। আল্লাহ আপনার শ্রমকে কবুল করেন, আমীন।

    Sign in to Reply
    Replying as Submit
    Best Answer
    0
    AnswersBD Administrator Dec 28, 2012 08:23 PM
    Flag(0)

    এম.এল.এম ব্যবসা হারাম বলে মত দেন এখনকার আলেমগন. আর, এটা যে ধোঁকাবাজী, তা এখন স্বীকৃত. একজন কেউ মন্দ কাজ চালু করলে, তার কারনে অন্য যারা এই মন্দে জড়ালো তার গুনাহ্ মন্দকাজ প্রবর্তকের উপরও পড়বে. সে অনুযায়ী এই ছেলের উপরও পড়বে. এখন দেখার বিষয়, সে কি এটা সজ্ঞানে না অজ্ঞতাবশত করেছে. অজ্ঞতাবশত করলে তো কোন গুনাহ্ নেই, আল্লাহ ক্ষমাশীল. সে কি এই টাকা রাখতে পারে? – এটা নির্ভর করে তার তাকওয়ার উপর. সাহস থাকলে সে এটা দান করে দিক, যা সবচে’ ভালো. আর যদি মনে করে, এটা দান করে দিলে তাকে পথে বসতে হবে. তাহলে আপাতত দান করা থেকে বিরত থেকে পরে সুবিধামত সময়ে তা করলেও করতে পারে. আর আল্লাহর ক্ষমা আর তওফিক দানের জন্য দোয়া করতে পারে, যাতে সঠিক কাজটি জীবিত থাকতেই সম্পন্ন করা যায়. আল্লাহ্ মাফ করুক.

    Sign in to Reply
    Replying as Submit